পরিবেশ রক্ষায় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা খুবই যত্নবান

Views
Charu Barta24 । । চারু বার্তা ২৪

নিউজ ডেস্ক:
বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের বন ও পরিবেশ বিষয়ক সম্পাদক দেলোয়ার হোসেন বলেছেন, দেশের পরিবেশ রক্ষায় শেখ হাসিনা এবং বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ খুবই যত্নবান। পরিবেশ সুরক্ষার কাজটি শুরু হয়েছিল বঙ্গবন্ধুর হাত ধরে ১৯৫২ সালে ফরিদপুর জেলায় বাগান তৈরি ও পরিচর্যার মাধ্যমে।

মঙ্গলবার (১৫ সেপ্টেম্বর) ঢাকা মহানগর দক্ষিণ কৃষক লীগের উদ্যোগে ডেমরা থানাধীন (৭০নং ওয়ার্ড) আমুলিমা মডেল টাউন প্রাঙ্গণে আষাঢ়-শ্রাবণ-ভাদ্র তিন মাসব্যাপী বৃক্ষরোপণ কর্মসূচি সমাপনী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন।

দেলোয়ার হোসেন বলেন, ১৯৬২ সাল থেকে পরিবেশের চিন্তা ও পরিবেশ আন্দোলন শুরু হলেও জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান ১৯৫২ সালে ভাষা আন্দোলনের সময় ঢাকা জেলখানা থেকে ফরিদপুর জেলখানায় দেয়া হলে সেখানে বসে অবহেলিত মানুষের মুক্তির চিন্তার পাশাপাশি পরিবেশের কথা ভাবতেন। সকাল-বিকালে সময় পেলে বঙ্গবন্ধু ফরিদপুর জেলখানার বারান্দায় বৃক্ষরোপণ করে বাগান রচনা করেছিলেন।

আর বৈজ্ঞানিক ব্যাখ্যা আর বিশ্লেষণ মাধ্যমে পরিবেশের চিন্তা শুরু হয় ১৯৬২ সালে মার্কিন বিজ্ঞানী Rachel Carson এর Slient Spring প্রকাশের পর থেকে।

তিনি বলেন, মার্কিন বিজ্ঞানীদের ১০ বছর আগে বঙ্গবন্ধু বুঝতে পেরেছিলেন পরিবেশের বিপর্যয় হবে, পরিবেশের বিপর্যয় রোধে আমাদের কাজ করতে হবে। জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান পরিবেশের ক্ষেত্রে অনন্য দূরদর্শী নেতা ছিলেন। বিশ্বের বিজ্ঞানীরা যখন পরিবেশ নিয়ে চিন্তা করতে পারেননি, তখন তিনি চিন্তা করেছেন। তার সরকারের বৃক্ষরোপন ও তার মেয়ে আমাদের প্রধানমন্ত্রী, আমাদের স্বপ্নের ঠিকানা, জননেত্রী শেখ হাসিনার হাত ধরে বৃক্ষরোপন চলছে। পরিবেশ দরদী হিসেবে শেখ হাসিনা বিশ্বের অগ্রসেনানী। পরিবেশ নিয়ে কাজ করায় জননেত্রী শেখ হাসিনা চ্যাম্পিয়ন অফ আর্থ পুরস্কার পেয়ছেন।

কৃষক লীগ প্রসঙ্গে দেলোয়ার হোসেন বলেন, করোনা ভাইরাসকে উপেক্ষা করে বাংলাদেশ কৃষক লীগ বৃক্ষরোপন কর্মসূচি, বন্যার্তদের মাঝে ত্রাণসামগ্রী বিতরণ, বোরো মৌসুমে ধান কেঁটে দিয়ে কৃষকদের সাহায্য করা, বিনা মূল্যে কৃষকের মাঝে সার-বীজসহ কৃষি সামগ্রী বিতরণ, জাতীয় শোক দিবসে স্বেচ্ছায় প্লাজমা-রক্তদান কর্মসূচি, এতিম-অনাথদের মাঝে মৌসুমী ফল ও উপহার সামগ্রী বিতরণ করে দৃষ্টান্ত স্থাপন করেছে যা অন্যান্য সংগঠনের জন্য অনুসরনীয় হয়ে থাকবে।

তিনি তিন মাসে প্রায় ৪০ লক্ষ বৃক্ষ রোপণ করায় বাংলাদেশ কৃষক লীগের সভাপতি কৃষিবিদ সমীর চন্দ, সাধারণ সম্পাদক এ্যাড. উম্মে কুলসুম স্মৃতি এমপিকে বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ সভাপতি কৃষকরত্ন জননেত্রী শেখ হাসিনার পক্ষ থেকে ধন্যবাদ জ্ঞাপন করেন।

বিশেষ অতিথির বক্তব্যে বাংলাদেশ কৃষক লীগের সভাপতি কৃষিবিদ সমীর চন্দ বলেন, মাননীয় প্রধানমন্ত্রী কৃষকরত্ন জননেত্রী শেখ হাসিনা’র নির্দেশ মতো কৃষক লীগের নেতা-কর্মীরা জীবনের ঝুঁকি নিয়ে বোরো মৌসুমে ধান কেটে কৃষকের গোলায় তুলে দেয়া, জাতীয় শোক দিবেস সারা দেশে জেলা, উপজেলা ও ইউনিয়ন কৃষক লীগ স্বেচ্ছায় রক্তদান কর্মসূচি, এতিম-অনাথদের মাঝে মৌসুমী ফল ও উপহার সামগ্রী বিতরণ, বন্যার্তদের মাঝে ত্রাণ সামগ্রী ও বিনামূল্যে সার-বীজ বিতরণসহ মুজিব বর্ষে আষাঢ়-শ্রাবণ-ভাদ্র তিন মাসে আমরা ৪০ লক্ষ গাছের চারা রোপণ করেছি।

তিনি ঢাকা-৫ আসনে আসন্ন উপ-নির্বাচনে বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ মনোনীত নৌকা পদপ্রার্থী কাজী মুনিরুল ইলাসম মনুর পক্ষে কমিটি গঠন করে বিজয় নিশ্চিতের জন্য কৃষক লীগ নেতৃবৃন্দকে নির্দেশ দান করেন।

প্রধান আলোচক এ্যাড. উম্মে কুলসুম স্মৃতি এমপি বিভিন্ন কর্মসূচি বাস্তবায়নে অগ্রণী ভূমিকা পালন করায় কৃষক লীগ নেতৃবৃন্দকে ধন্যবাদ জানিয়ে সাংগঠনিক কাঠামো মজবুত করতে জেলা ও উপজেলা পর্যায়ে বর্ধিত সভা আহ্বান ও যে কোনো মূল্যে অনুপ্রবেশ রোধ করার পরামর্শ দেন।

ঢাকা মহানগর দক্ষিণ কৃষকলীগের আষাঢ় শ্রাবণ ভাদ্র ৩ মাস ব্যাপী বৃক্ষরোপণ কর্মসূচির সমাপনী অনুষ্ঠান ডেমরার আমুলিয়া মডেল টাউনে অনুষ্ঠিত হয়। ঢাকা মহানগর দক্ষিণ কৃষকলীগের সভাপতি আব্দুস সালাম বাবুর সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত সভায় প্রধান অতিথি ছিলেন বাংলাদেশ আওয়ামীলীগের বন ও পরিবেশ সম্পাদক দেলোয়ার হোসেন, বিশেষ অতিথি ছিলেন বাংলাদেশ কৃষকলীগের সভাপতি কৃষিবিদ সমীর চন্দ, সাধারণ সম্পাদক এডভোকেট উম্মে কুলসুম স্মৃতি এমপি।

অনুষ্ঠানে বক্তব্য রাখেন, বাংলাদেশ কৃষকলীগের ঢাকা বিভাগের সমন্বয়ক মো. আবুল হোসেন, ঢাকা- আসনের উপনির্বাচনে বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের মনোনীত প্রার্থী কাজী মনিরুল ইসলাম মনু, ডেমরা থানা আওয়ামী লীগের সভাপতি এডভোকেট রফিকুল ইসলাম মাসুদ, সাধারণ সম্পাদক হারুন অর রশিদ মুন্না,ঢাকা মহানগর দক্ষিণ কৃষকলীগের বৃক্ষরোপণ উপকমিটির আহ্বায়ক মো. ইব্রাহীম মোল্লা এবং সদস্য সচিব হাসান মাহমুদ অপু।

Charu Barta24 । । চারু বার্তা ২৪

মন্তব্য করুন